অনুবাদ:কল্যাণী রমা

মঙ্গলবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১২

তালাক

মূলঃ এ্যান সেক্সটন

একসাথে আমাদের যে জীবন ছিল, তা আমি খুন করেছি,
কুড়াল দিয়ে কেটে ফেলেছি দু’টো মাথা,
ওদের করুণ নীল চোখগুলো বীচ-বলের ভিতর গেঁথে
গড়িয়ে দিয়েছি আলাদা আলাদা পথে।
যা কিছু ভালো ছিল, তার সব সব আমি হত্যা করেছি
বড় বেশি একগুঁয়ে ওইসব তবু
আমায় আঁকড়ে ধরে ঝুলে থাকছে।
একসাথে কাটানো দিনের টুকরো টুকরো সব কথা
হামাগুড়ি দিয়ে ওদের কবরে সেঁধিয়েছে,
একটা স্ট্রবেরি-র মত প্রিয়,
শরীরে শরীর মিশে গিয়ে
আমাদের ভিতর জন্ম নিয়েছে আমাদের দুই মেয়ে,
পোশাক পড়বার সময় তোমার চাহনি,
ভোরবেলা,
সব আলাদা আলাদা জামাকাপড়, নিপাট ভাঁজ করা,
বিছানার ধার ঘেঁষে বসে তোমার জুতাপালিশ করা,
কালি দিয়ে ঘষে ঘষে,
আর আমি তখন তোমাকে বড় ভালোবাসতাম, স্নান ক’রে ভেজা তুমি, এত বেশি প্রাজ্ঞ তুমি,
আর আমি তোমাকে আরও অন্যান্য অনেক সময়েও ভালোবেসেছি, এবং
আমি প্রায় কয়েক মাস থেকেই এইসব কিছুকে ডুবিয়ে মেরে ফেলবার চেষ্টা ক’রে চলেছি,
ঠেলে নিচে ফেলে দিতে চাচ্ছি, ওর লম্বা লাল জিহবা মাছের মতই নিচে চেপে ধরে রাখতে চাচ্ছি,
কিন্তু যখনই তাকাচ্ছি, মনে হচ্ছে যেন আগুন লেগে গেছে ওদের শরীরে,
বাসমাছ, ব্লুফীশ, ফ্যাকাশে চোখের ফ্লাউন্ডার
সাগরের শ্যাঁওলা আর আগাছার ভিতর যেন জ্বলছে
অজস্র সূর্যের মত সমুদ্রের ঢেউ চূর্ণ-বিচূর্ণ করে ভাঙছে ওরা
আর আমার প্রেম তিক্তভাবে জ্বলে জ্বলে নিঃশেষ
মাংসপেশির সেই খিচুনি কখনো ঘুমাবে না,
আর অসহায় আমি, বড় তৃষ্ণা, একটু ছায়া চাই
কিন্তু আমায় ঢেকে দেওয়ার মত কোথাও কেউ নেই-
ঈশ্বরও নেই।




http://www.choturmatrik.com/blogs/%E0%A6%95%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%A3%E0%A7%80-%E0%A6%B0%E0%A6%AE%E0%A6%BE/%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%95

1 টি মন্তব্য:

  1. মূল কবিতাটি পড়িনি, তাই অনুবাদটিই আমার কাছে কবিতার সবটুকু। ভাল লেগেছে, দিদি...

    "অজস্র সূর্যের মত সমুদ্রের ঢেউ চূর্ণ-বিচূর্ণ করে ভাঙছে ওরা
    আর আমার প্রেম তিক্তভাবে জ্বলে জ্বলে নিঃশেষ
    মাংসপেশির সেই খিচুনি কখনো ঘুমাবে না,
    আর অসহায় আমি, বড় তৃষ্ণা, একটু ছায়া চাই
    কিন্তু আমায় ঢেকে দেওয়ার মত কোথাও কেউ নেই-
    ঈশ্বরও নেই।"

    উত্তরমুছুন