অনুবাদ:কল্যাণী রমা

মঙ্গলবার, ২০ মে, ২০১৪

ভোরের গান


~সিলভিয়া প্লাথ

ভালোবাসা তোমাকে টেনে নিয়ে চলেছে পেটমোটা একটা সোনার ঘড়ির মত।
পায়ের পাতায় দাইমা চাটি মারতেই তোমার নগ্ন চীত্‌কার
সবকিছুর মাঝে নিজ জায়গা করে নিল।

আমাদের কন্ঠস্বরের প্রতিধ্বনি, তোমার আগমনকে আরো বড় করে দেখালনতুন মূর্তি।
এক শীতল যাদুঘরে, তোমার নগ্নতা
ঝাপসা করে দেয় আমাদের নিরাপত্তাকে। আমরা গোল হ’য়ে দাঁড়িয়ে থাকি শূন্য দেয়ালের মত।

এক আয়নাকে ফোঁটায় ফোঁটায় ঝরিয়ে
প্রতিবিম্বিত করতে চায়, বাতাসের হাতে
ধীরে ধীরে নিজেকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে চায় যে মেঘ
আমি তারচেয়ে বেশি তোমার মা নই

আলোর দিকে ছুটে যাওয়া রাতের পোকাগুলোর মত তোমার শ্বাসপ্রশ্বাস সারারাত 
চ্যাপ্টা গোলাপি গোলাপগুলোর মাঝে কাঁপতে থাকে। শুনবার জন্য আমি জেগে উঠিঃ
এক দূরের সমুদ্র আমার কানের ভিতর এগিয়ে আসে।

একটা চীত্‌কার, আর আমি বিছানা থেকে টলতে টলতে উঠতে গিয়ে হোঁচট খেয়ে পড়ি,
গাভীর মত ভারী আর ফুলে ফুলে ভরা ভিক্টোরিয়ান নাইটগাউন আমার
তোমার মুখ খুলে যায়, বিড়ালের পরিষ্কার মুখের মত সে মুখ। জানালার চারকোনাটা

শাদা হ’তে হ’তে গিলে ফেলে নিষ্প্রভ তারা। আর এখন তুমি পরখ করে দেখছ
মুঠোভর্তি টুকরো টুকরো কাগজগুলো;
উজ্জ্বল স্বরবর্ণ সব উঁচু থেকে উঁচুতে উড়ে যায় বেলুনের মত।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন